আগামী ১০ দিনের মধ্যে ১০০ শতাংশ প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর অনুমতি |

 

প্রায় দীর্ঘ একটা সময় বন্ধ ছিল যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল। এরপর ঠিক আগের মতনই যাত্রী পরিবহন করার অনুমতি দেওয়া হল রেলের বোর্ড থেকে | বেশকিছু ধাপে ধাপে কিছু কিছু ট্রেনকে চালু করা হলেও পুরোপুরিভাবে একদমই চালু করা হয়নি | আর কিছুদিনের মধ্যেই ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হলে স্বাভাবিক হবে বলে মনে করা হচ্ছে | সব ট্রেন গুলিকে চালু করা হবে ১০০% প্যাসেঞ্জার নিয়ে চলাচল করতে পারবে ট্রেনগুলো |

পর্বে ধাপে ধাপে কিছু ট্রেন চালু করা হলেও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা। রেলমন্ত্রকের দাবি, সারা দেশে ৬৫ শতাংশ মেল-এক্সপ্রেস ট্রেন চলছে বর্তমানে। বিভিন্ন শাখায় ও রেল জোনে লোকাল ও প্যাসেঞ্জার ট্রেন পরিষেবা শুরু হলেও তা স্বাভাবিক হয়নি এখনও। এরজন্য যাত্রীদের ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে বিভিন্ন এলাকায়, অসুবিধার মুখে পড়তে হয়েছে সাধারণ মানুষকে বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানুষগুলোকে প্রচুর পরিমাণে অসুবিধার মুখে পড়তে হয়েছে। ট্রাইবেল দপ্তরে তরফ থেকে এই সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য খুব শিগগিরই, আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাঁদের ১০০ শতাংশ প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর অনুমতি দিয়েছে | সমস্ত লোকাল থেকে এক্সপ্রেস ট্রেন গুলো কে চালু করার অনুমতি দেওয়া হল পুরোপুরিভাবে |

 

পূর্ব দপ্তর জানিয়েছিলেনজানিয়েছে, বর্তমানে তাদের ১৩০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন পরিষেবা দিচ্ছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে আরও ১৭০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালু করে দেওয়া হবে। যে সমস্ত লোকাল ট্রেন গুলোকে বন্ধ করা হয়েছিল সেই সমস্ত লোকাল ট্রেন গুলোকে পুরোপুরি ভাবে চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন |যে সমস্ত শাখায় ট্রেন বাড়বে সেগুলি হল, শিয়ালদা-লালগোলা, আসানসোল-বর্ধমান, আসানসোল-যসিডি, আসানসোল-সাঁইথিয়া, রামপুরহাট-বর্ধমান, রামপুরহাট-বাহারওয়া, অজিমগঞ্জ-কাটোয়া, অজিমগঞ্জ-বাহারওয়া, বর্ধমান-সাহেবগঞ্জ, সাহেবগঞ্জ-তিনপাহাড়, নবদ্বীপ-মালদহ। এই সমস্ত শাখায় খুব কম সংখ্যক ট্রেন চলছিল, পুরোপুরি ভাবে চালু করা হয়নি এখনো অব্দি । এবার এই সমস্ত প্যাসেঞ্জার ট্রেনই পুনরায় আগের টাইমটেবিলে চলাচল করবে বলে জানিয়েছেন পূর্ব রেলের দপ্তর । আগামী ১০ দিনের মধ্যে পুরোপুরিভাবে ট্রেন চলাচল আর যাত্রীদের সুবিধা-অসুবিধার সমাধান হবে বলে এমনটাই মনে করেছেন রেল দপ্তর |

 

ছবিঃ ইন্টারনেট…