আবার কি মূল্যবৃদ্ধি হতে পারে তা নিয়ে জল্পনা ছড়াল সারাদেশে

রাজ্য সংবাদ:ডিসেম্বর মাস থেকে আবার দু’একটা সার্কেলের পোস্ট পেড প্লেনের মূল্যবৃদ্ধি করল ভোডাফোন আইডিয়া (VI)।আর তা নিয়ে শুরু হয়েছে সারাদেশে জল্পনা, ফের কি তাহলে সার্বিকভাবে মূল্যবৃদ্ধি পথেই হাঁটছে আদিত্য বিড়লা গোষ্ঠীর সংস্থা। যাদের মাথায় চেপে আছে বিপুল সরকারি ফি-র পবকেয়া।তাহলে কি সে কারণেই মূল্যবৃদ্ধি করতে চলেছে ভোডাফোন আইডিয়া।
ভারতবর্ষের মধ্যে বাজারে এসে দীর্ঘদিন নিখরচায় ও পরে সস্তা মূল্যের দ্রুতগতির 4G  স্পিড পরিষেবা দিয়ে এই ব্যস্ততম অনেক কাজ কেই সহজ করে দিয়েছে রিলায়েন্স জিও।

 

গত ডিসেম্বর মাসে অবশ্য ভিঅাইএল,এয়ারটেল,বিএসএনএলর সঙ্গে তারা সার্বিক ভাবে মূল্যবৃদ্ধি বাড়ায়। এবার ফের উত্তরপ্রদেশের মতো সার্কেলে ১০ টির মধ্যে ২ টি প্রোস্টেপেড পরিষেবার মূল্যবৃদ্ধি ৫০ টাকা বাড়িয়েছে ভোডাফোন আইডিয়া। তবে সারা ভারতবর্ষের সার্কেল জুড়ে মূল্যবৃদ্ধি হবে কিনা সেসব কোন তথ্যই দিল না বুধবার সংস্থার তরফ থেকে। এবং তা নিয়ে প্রতিক্রিয়া মেলেনি এয়ারটেল জিওর তরফ থেকেও। আরও জানা গেছে এই মাসের পর থেকে পোস্ট পেড পরিকল্পনার মূল্য বৃদ্ধির হার সংশোধন করতে চলেছে বিএসএনএলও। সেক্ষেত্রে বলা হয়েছে আগে কথা বলার জন্য কোনো সময়সীমা নির্দিষ্ট করার থাকতো না তবে এখন দৈনিক ২৫০ মিনিট বেঁধে দিয়েছেন তারা। সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে একটি গ্রাহকের ক্ষেত্রে এই সময়সীমা টাই যথেষ্ট । বরং অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মূল্য কমেছে মোবাইলে ডাটার পরিমাণ আরো অনেকখানি বেড়েছে।

 

তবে প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতী এয়ারটেল কর্ণধার সুনীল মিত্তলওসম্প্রতি দাবি করেছেন যে,সংস্থাগুলি ব্যবসা চালাতে গেলে গ্রাহক পিছু আয় বৃদ্ধি প্রয়োজন হবে। আর সে জন্যই দরকার মূল্যবৃদ্ধির। তবে জল্পনা ছড়িয়ে থাকলেও বুধবার পর্যন্ত এখনো কাউকে স্পষ্ট করে বলেননি, তাই আশঙ্কা তৈরি হয়েছে গ্রাহকদের মধ্যে।কারণ বর্তমান পরিস্থিতির কারণে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা থেকে শুরু করে সরকারি চাকরিজীবীদের বিভিন্ন ধরনের কাজ, ব্যবসা-বাণিজ্যের বিভিন্ন ধরনের কাজ সবেতেই এখন মোবাইল প্রয়োজন। এবার সেই মোবাইল খরচ যদি আরো বাড়ে,তানিয়া অাশংকিত গ্রাহকেরা।