আগামী ১০ই ডিসেম্বর নতুন সংসদ ভবনের ভূমি পূজা করবেন প্রধানমন্ত্রী, আসন থাকবে ৮৮৮টি

 

রাজ্য সংবাদ: গতকাল এক সাংবাদিক সম্মেলনে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা জানায়, আগামী বছর থেকেই নতুন সংসদ ভবনের বসবেন অধিবেশন। আরে নতুন সংসদ ভবনের শিলার নাচ করতে চলেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ১০ই ডিসেম্বর।লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে গিয়ে আমন্ত্রণ পত্র জানিয়ে আসছেন।

১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠানের প্রধানমন্ত্রীর সাথে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীরা উপস্থিত থাকবেন সরাসরি কিংবা ভার্চুয়াল ভাবে।বদলে যেতে চলেছে অতিপরিচিত সংসদ ভবনের চেহারা। সংসদ ভবনে বার তৈরী করা হবে নতুনভাবে। এদিন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা জানায় নয় ভবন হবে ৬৪ হাজার ৫০০ বর্গ মিটার এলাকা জুড়ে। এবং লোকসভার মোট আসন সংখ্যা থাকবে ৮৮৮টি।

লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা জানায়, আমরা স্বাধীনতার পর পরে পুরনো সংসদ ভবন দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলাম কিন্তু এবার স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষ পূরণের নতুন সংসদ ভবনের অধিবেশন শুরু করবো। যদি এটাকে ইট-পাথরের দেওয়াল বলা হয় তাহলে ভুল হবে, আসলে এটা ১৩০ কোটি মানুষের স্বপ্ন পূরণের জায়গা। এখানেই শেষ নয় বিড়লা আরো জানায়, এই নতুন ভবনের কেবলমাত্র সংসদ ভবন নয়। এর মধ্যে ফুটে উঠে মানুষের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র শিল্পকলা।

বর্তমানে পুরাতন সংসদ ভবনের বয়স ১০০ বছর, তাই ১৩০ কোটি মানুষের কথা মাথায় রেখে এবং আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার লক্ষ্যে নতুন ভবন তৈরি করা হয়েছে। নতুন সংসদ ভবন করার জন্য দরপত্র দিয়েছিলেন লারসেন এন্ড অ্যান্ড টুরবো,সাপুরজি সহ মোট সাতটি সংস্থা। ভবন তৈরীর জন্য সর্বোচ্চ খরচ ধরা হয়েছিল ৯৭১ কোটি টাকা। তবে সবচেয়ে কম টাকা দর দিয়ে বরাত জিতে নেন টাটা গোষ্ঠী। সংসদের ভিতরে থাকবে আত্মনির্ভর ভারতের মন্দির। যেখানে বিবিধের মাঝে মিলনের উদাহরণ তুলে ধরা হবে।