পঞ্চায়েতের ব্যবস্থার ঠিক থাকলে দুয়ারের সরকারের প্রয়োজন হতো না |সাংবাদিক বৈঠক করে শনিবার চূ়ড়ান্ত ইস্তাহার প্রকাশ করলেন বিমান বসু-সহ অন্য বাম নেতৃত্ব।

 

চূড়ান্ত নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করল বামফ্রন্ট। সাংবাদিক বৈঠক করে শনিবার চূ়ড়ান্ত ইস্তাহার প্রকাশ করলেন বিমান বসু-সহ অন্য বাম নেতৃত্ব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনা তুলে বিমান বললেন, ‘‘নাগরিকরা স্বাস্থ্য পরিষেবা পাচ্ছেন না। তাঁর জ্বলন্ত প্রমাণ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে আঘাত লাগা। তাঁর পায়ে প্লাস্টার করতে হয়েছিল।। তিনি বলেছিলেন চার-পাঁচ জন তাঁকে আঘাত করেছে। নন্দীগ্রামে তো হাসপাতাল ছিল তার সত্বেও সেখানে তাকে সেখানে তাকে কেন ভর্তি করা হয়নি ? তাঁকে গ্রিন করিডোর করে এসএসকেএম-এ এনে রাখা হল।’’ তাঁর অভিযোগ, ‘‘স্থানীয় হাসপাতাল নামেই সুপার স্পেশালিটি।

বাম আমলে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ঢক্কানিনাদ ছিল না। তবুও চিকিৎসা ভাল হত এমনটাই জানালেন বামফ্রন্ট সরকার । স্বাস্থ্য কেন্দ্র গুলির অবস্থা আগের তুলনায় অনেক খারাপ বলে অভিযোগ করলেন বামফ্রন্ট সরকার , স্বাস্থ্যের বেহাল দশা।’’ এ ছাড়া রাজ্যের কর্মসংস্থান থেকে শিল্পের বেহাল দশা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। এছাড়াও তিনি বলেন যদি আমাদের অঞ্চলগুলো ঠিক থাকতো তাহলে আমাদের দুয়ারে সরকার প্রয়োজন হতো না | যদি অঞ্চলে সব সুযোগ সুবিধা হল সুবিধাগুলো যদি পাওয়া যেত তাহলে সাধারন মানুষকে এতটা হয়রান হতে হতো না | তিনি আরো দাবি করছেন যে তৃণমূল সরকারের থেকে বামফ্রন্ট সরকার অনেক বেশি সুবিধা দিত |

তিনি আরো জানিয়ে দিলেন যে বামেরা এ বার ভোটে লড়ছে সংযুক্ত মোর্চার মাধ্যমে। সেখানে রয়েছে কংগ্রেস ও আইএসএফ। বিমান বলেন, ‘‘এটি বামফ্রন্টের ইস্তাহার। এর আগে একটি খসড়া ইস্তাহার প্রকাশ করা হয়েছিল। শনিবার চূড়ান্ত ইস্তাহার প্রকাশ করা হল কর্তৃপক্ষ থেকে | সাধারণমানুষ-এর হয়ে সুযোগ সুবিধা গুলো সাথে সকল মানুষের সাথে পাশে থাকবেন বলে এমনটাই জানালেন বামফ্রন্ট সরকার |