পেশায় সাফাই কর্মী হলে কি হবে সততার নজির গড়লেন তিনি, ১০ লাখ পেয়েও মালিককে ফেরত দিলেন.

 

দীপাবলির সময় সবাই  সবাইকে সাধারণত বোনাস বা উপহার দেওয়া হয় এই আমাদের নিয়ম| কিন্তু এখানে ব্যতিক্রম ঘটে, এই উপহারের বাক্সেই পূর্ব দিল্লি পৌর কর্পোরেশন এর এক মহিলা সাফাই কর্মী যখন মিষ্টির বাক্স মিষ্টির বদলে ১০ লাখ টাকা পান| তখন তার মনে হয় এই টাকা ভুল করে কেউ তাকে ভ বাক্সের মধ্যে দিয়ে দিয়েছেন| তখন তিনি এই টাকা সততার সাথে যার পয়সা তাকে ফিরিয়ে দেন| পূর্ব দিল্লির মেয়র নির্মল জইন সাফাই কর্মীর এমন সততার জন্য তাকে পুরস্কৃত করবেন বলে জানান| 

 

রোশনি নামের এক কর্মচারী কে মিষ্টির বাক্সের বদলে একটি ব্যাগ দিয়ে দেন এক বৃদ্ধ| সে কর্মচারী বাড়ি গিয়ে যখন ব্যাগটি খুলে দেখেন তখন তিনি প্রথমে চমকে যান ,কারণ সেই ব্যাগের ভিতর মিষ্টি বদলে ছিল প্রায় ১০ লাখ টাকা| সেই কর্মচারী এই টাকা দেখামাত্রই সেখানকার লোকাল কাউন্সিলর এর কাছে ব্যাগটি নিয়ে যান| এবং কাউন্সিলর কে পুরো ব্যাপারটি খুলে বলেন| তারপর কাউন্সিলর এই ব্যাপারটি জেলাশাসক কে বলেন| এবং জেলা শাসকের সামনে সেই বৃদ্ধ লোককে ডেকে নিয়ে আসা হয় এবং সততার সাথে তার হাতে তুলে দেওয়া হয়| 

 

সনু নন্দ নামের ওই বৃদ্ধ ব্যক্তি যখন সেই  টাকা ফিরে পান তখন অত্যন্ত খুশি হন এবং সততার জন্য তিনি সেখান থেকে ২১ সত টাকা উপহারস্বরূপ দিয়ে দেন | মহিলা কর্মচারী এমন সততায় জেলাশাসক অত্যন্ত খুশি হন| এবং তিনি বলেন তিনি পূর্ব দিল্লির পৌরসভার নাম এমন কাজের মধ্যে দিয়ে উজ্জ্বল করেন| সাধারণত পৌরসভার কর্মচারীদের লোক সন্দেহের চোখে দেখেন কিন্তু এই সততা সবার মধ্যে বিশ্বাস ফিরিয়ে আনবেন বলে তিনি মনে করেন