আজ কৃষক সংগঠনের সাথে পঞ্চম বারের মত বৈঠক হবে, এবং প্রথমবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই বৈঠকে থাকছেন

রাজ্য সংবাদ: দেশজুড়ে কিষান আন্দোলন আরো প্রখর হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবং তা নিয়ে আগেও চারবার বৈঠক করেছেন কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নেতারা। তবে আজ পঞ্চম বারের মতো সরকারের তরফ থেকে একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে।এবং এই বৈঠকে অাজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির থাকছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বৈঠক শুরু হওয়ার আগেই চারজন বিশেষ নেতার সাথে আলোচনা করেন। তবে কিষানের তরফ থেকেও আজকে সরকারকে বড় হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। কৃষাণ সংগঠনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে তিনটি নতুন কৃষি বিল আনা হয়েছে তাপ পুরোপুরিভাবে বাতিল করতে হবে। না হলে তারা এই আন্দোলন প্রত্যাহার করবেন না।

আজ দুপুর দুটোর সময় এই বৈঠক ডাকা হয়। আজ এই বৈঠকের মধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে সরকারি প্রতিনিধির সাথে সাথে প্রধানমন্ত্রী নিজেও ছিলেন।বৈঠক শেষে জানা যায়  নতুন তিনটি কৃষি আইন বাতিল করা হবে না। তবে সংশোধন করা হবে। কিন্তু তা কৃষক ফোন মানতে নারাজ। কৃষক সংগঠনের দাবি তারা এই তিনটি আইন পুরোপুরিভাবে বাতিল করতে চায়। কিশোরসমগ্র তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যদি আইনটি বাতিল না করা হয় তাহলে এভাবেই আন্দোলন চলবে।