বিশাল ঢেউ নিয়ে ধেঁয়ে আসছে সাইক্লোন, তামিলনাড়ু উপকূলে, জানালো আবহাওয়া দপ্তর।

রাজ্য সংবাদ:একের পরে এক সাইক্লোন এর ধাক্কায় আর ঘূর্ণিঝড়ের আতঙ্কে কাঁপছে গোটা দেশ। তার মধ্যেই আবার এগিয়ে আসছে বুরেভি। আর এর ফলে যে উঠতে পারে প্রায় 1 মিটারের বেশী উচু ঢেউ। আগামীকাল বৃহস্পতিবার আর কালকেই ।

তামিলনাড়ুর উপকূল অঞ্চলে আছেরে পড়তে পারে এই ঘূর্ণিঝড়।আবহাওয়া দপ্তরের খবর অনুযায়ী 70 থেকে 80 কিলোমিটার বেগে বইতে পারে এই ঝড়। তবে জানানো হয়েছে যে আছেরে পড়ার সময় এই ঝড়ের গতিবেগ থাকবে প্রায় 90 থেকে 100 কিলোমিটার ঘন্টা।
জানা যাচ্ছে যে আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পাম্বান এর উপর দিয়েই ঝড় বয়ে যেতে পারে।শুক্রবার ভোরেই উপকূলে উপরে আছড়ে পড়তে পারে এই ঝড়।ইতিমধ্যে কিছু কিছু এলাকায় এই ঝড়ের প্রভাব শুরু হয়ে গেছে।

আবহাওয়া দপ্তর থেকে খবর পাওয়ার পরেই স্থানীয় বাসিন্দাদের নির্দৃষ্ট সুরক্ষিত স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
মৎস্যজীবীদের, আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে সমুদ্রের যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গৃহ মন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে, প্রত্যেক রাজ্যের ওই প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে সতর্ক থাকার বার্তা জারি করা হয়েছে।

অন্য দিকে প্রতিমুহূর্তে সাইক্লোনে দিকে নজর রাখা হচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে। আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন যে, করছেন যে ভর্তি অঞ্চল কন্যাকুমারী ও পণ্যের মধ্যে দিয়ে এই ঝড় বয়ে যেতে পারে। এই ঝড়ের গতিবেগ তাই কি হতে পারে। অন্যদিকে আগামী দুদিন প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে কেরলের বিস্তীর্ণ উপকূলীয় এলাকায়।

আগাম সতর্ক হওয়ার জন্য কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর তরফ থেকে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে সংকট মোকাবেলার কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য রাজ্জে পৌঁছে গিয়েছে এনডিআরএফ এর টিম। ঝড়ের জরুরী পরিস্থিতিতে ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এনবিআরের টিমকে।