ভোটকেন্দ্রের সিসিটিভি ক্যামেরা ভাঙ্গার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে|

 

ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের সিসিটিভি ক্যামেরা ভাঙার ঘটনায় উত্তেজনা ছড়ায় বুধবার সকালে। বর্ধমান উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট রাত পোহালেই সিসিটিভি ক্যামেরা অভিযোগ উঠল এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রি বিরুদ্ধে। সেখানে ২০৫, ২০৬ এবং ২০৬-এ তিনটি বুথই একটি শিশুশিক্ষাকেন্দ্রে রয়েছে।  স্থানীয় সূত্রের খবর, যাঁর কাছে ওই ভোটকেন্দ্রের চাবি আছে, বুধবার তাঁর কাছে দু’টি ছেলে এসে চাবি নেয়। তারা ইলেকট্রিকের মিস্ত্রি বলে নিজের পরিচয় দিয়েছিল। এর পর তারা ‘কাজ’ সেরে চাবি ফেরত দিয়ে চলে যায়।পরে দেখা যায় সিসিটিভি ক্যামেরা ভাঙ্গা অবস্থায় পড়ে আছে | বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে ঠিক সেই মুহূর্তে বিজেপি তৃণমূল কে দোষারোপ করে অন্যদিকে তৃণমূল অভিযোগটি উড়িয়ে দেয় |

স্থানীয় মানুষদের কাছ থেকে জানা যায় সকাল বেলা সেখানে একটি  চিপ  পড়ে থাকতে দেখা যায় | এই নিয়েই চাঞ্চল্য ছড়ায় | এরপরে লক্ষ্য করা যায় বুথের যে সিসিটিভি ক্যামেরা সেটা ভাঙ্গা হয়েছে |  বিজেপি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগের চক্রান্ত বলে জানিয়েছেন  |  কিন্তু অন্যদিকে বিরোধী তৃণমূল এই অভিযোগ উড়িয়ে দেয় | খবর পেয়ে পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের আসে | তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং স্থানীয় শান্তি বজায় রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে প্রশাসনিক ব্যবস্থার মাধ্যমে |

বিজেপি-র স্থানীয় নেতা গৌতম ঘোষ বলেন ,এর পিছনে তৃণমূল চক্রান্ত করেছে বলে ওরাই চাবি রাখার জায়গা টা পাল্টে দিয়েছে |  অন্যদিকে যাদের বাড়িতে চাবি রাখা ছিল সেই মদিনা শেখ বলেন, ‘‘আমি বাড়ি ছিলাম না। কারা চাবি নিয়ে গেছে তাদের চিনি না। ওরা ইলেক্ট্রিকের লোক বলে চাবি নেয়।’’

তৃণমূলের জেলা মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস জানিয়েছেন , ‘‘ওখানে আমরা শক্তিশালী।আমরা এই ধরনের কাজ করব না ব্যাপারটি খতিয়ে দেখে দোষীদের কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক “|