ত্বকের উজ্জ্বলতার জন্য

 

নিজেকে ত্বকের আরো সুন্দর বানানোর জন্য ব্যবহার করতে পারেন হলুদ |ত্বকের উজ্জ্বলতার জন্য হলুদের এর গুরুত্ব অপরিসীম |আপনি ব্যবহার করতে পারেন হলুদের এই পাঁচ ফেসপ্যাক |দৈনন্দিন জীবনে আমাদের | প্রচুর জায়গায় ঘোরাফেরা করতে হয় যার জন্যই ত্বকের উজ্জ্বলতা ধুলো ময়লায় নষ্ট হতে থাকে |যার জন্য আমাদের ত্বকের উপর নজর দেওয়া উচিত যাতে আমাদের ত্বক পরিষ্কার এবং ঝলমলে থাকে | এভাবে নিত্যনতুন ধুলা ময়লা আবর্জনা আমাদের ত্বকের উপর পড়ে তাতে আমরা যদি যত্ন না নেই হতে পারে ত্বকের সর্বনাশ|

ত্বকের পরিচর্যায় হলুদের ব্যবহার দীর্ঘদিনের চলে আসছে । হলুদ ত্বকের জন্য একটি অ্যান্টিবায়োটিক এর মত কাজ করে | ত্বককে উজ্জ্বল করতে, র‌্যাশ-ব্রণর সমস্যা দূর করতে হলুদের কোনও জবাব নেই। আমাদের ত্বকের সুন্দর, নমনীয় ও মসৃণ রাখতে হলুদের গুরুত্ব অপরিসীম। যেতে হবেনা আপনাকে পার্লারে | বাড়িতেই হলুদ আর কয়েকটি ঘরোয়া উপাদান দিয়ে বানিয়ে ফেলুন চমৎকার ফেসপ্যাক খুব অল্প সময়ে। আজকে আমরা দেখবো কিভাবে আমাদের ত্বকের যত্ন নিতে পারব একটা হলুদ ফেসপ্যাক মাধ্যমে|

ঘরোয়া উপায়ে আপনি আপনার ত্বককে কোমল আর উজ্জ্বল রাখুন |

আপনি হলুদের সাথে মধু এবং দুধ মিশিয়ে একটি ফেসপ্যাক তৈরি করতে পারেন | যার জন্য আমার আপনার প্রয়োজন হবে পরিমাণ মত হলুদের গুঁড়ো এক চামচ মধু দুই চামচ কাঁচা দুধ আপনি একটা ফেসপ্যাক বানিয়ে নিন| ব্যবহার করার সময় পরিষ্কার ঠান্ডা জলে আগে মুখ ধুয়ে নেবেন | তারপর আপনি ফেসপ্যাক পুরো মুখে লাগিয়ে নিন | ২০-২৫ মিনিট পরে আপনি এটি ধুয়ে ফেলতে পারেন ঠান্ডা জলে| মধু ও হলুদ দুটোই ত্বকের ক্ষেত্রে খুবই উপকারী | এতে ব্রন , বলিরেখা দূরকরতে বিশেষ কার্যকর | আপনি চাইলে সপ্তাহে একবার থেকে দুইবার ব্যবহার করতে পারেন এতে খুব ভালো ফল পাবেন| দেখবেন আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বেড়ে চলেছে |
উজ্জ্বল ত্বক ও সুস্থ শরীরের জন্য হলুদ ভূমিকা | উজ্জ্বল ত্বক ও সুস্থ শরীরের জন্য হলুদ ভূমিকা |

 

জেনে নিন হলুদ এর গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা গুলি |
হলুদ বেসন আর গোলাপ জল মিশিয়ে আপনি খুব সুন্দর একটি ফেস প্যাক বানিয়ে নিতে পারেন | গোলাপজল আমাদের ত্বকের জন্য অনেক উপকারী| আমাদের ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেয় ব্যাকটেরিয়া থেকে মুক্তি দেয় | যার ফলে ব্রণ হওয়ার প্রবণতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে | যাদের ক্ষেত্রে বিশেষত ব্রণ হয় তারা এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন | খুব ভালো ফল পাওয়ার জন্য আপনাকে নিতে হবে গুঁড়ো হলুদ বেসন খানিকটা গোলাপজল | সবগুলো মিশিয়ে একটা সুন্দর করে পেস্ট বানিয়ে নিন | সবার প্রথমে ভালো করে মুখ ধুয়ে নেবেন ঠান্ডা জলে তারপরে ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করবেন | পুরো মুখে ফেসপ্যাক লাগিয়ে নেওয়ার পরে কুড়ি থেকে ২৫ মিনিট পরে শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে ধুয়ে নেবেন | এটি সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার ব্যবহার করে দেখতে পারেন | যদি নিয়মিত ব্যবহার করেন তাহলে অবশ্যই সুফল পাবেন |
মনে রাখবেন যেকোনো ধরনের ফেসপ্যাক যেটি হলুদ দিয়ে তৈরি করবেন ,সেটার ক্ষেত্রে কুড়ি থেকে ২৫ মিনিটের বেশি মুখে লাগিয়ে রাখবেন না | কারণ এতে বিপরীত প্রতিক্রিয়া হতে পারে | আপনার ত্বকের ক্ষতি হতে পারে | কুড়ি থেকে ২৫ মিনিটের আগেই ঠান্ডা জলে ধুয়ে নেবেন | এই ধরনের ফেসপ্যাক গুলো ব্যবহার করার পরে কখনোই ফেসওয়াশ ব্যবহার করবেন না| এতে হলুদের কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায় | শুধুমাত্র হলুদের ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন |