কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা |

কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা :কিসমিস আমরা সবাই চিনি ও প্রায় সবাই খেতে পছন্দ করি। কিন্তু আপনি কি জানেন ? কিসমিস খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। যদি না জানেন তাহলে জেনে নিন | আসলে কিসমিস হল আঙুর ফলের শুকনা রূপ। এটি দেখতে সোনালী-বাদামী রংয়ের চুপসানো ভাঁজ হওয়া ফলটি খুবই শক্তিদায়ক।কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা আছে প্রচুর পরিমাণে |

সাধারণত কিসমিস তৈরি করা হয় সূর্যের তাপ অথবা মাইক্রোওয়েভ ওভেনের সাহায্যে। তাপের ফ্রুক্টোজগুলো জমাট বেঁধে পরিণত হয় কিশমিশে। আর এভাবেই আঙ্গুর শুকিয়ে তৈরি করা হয় আমাদের প্রিয় কিসমিস | পায়েস কিংবা পোলাও মধ্যে কয়েকটি কিসমিস তাতে দিলে, স্বাদ কয়েক গুণ বেড়ে যায় | এইজন্য যেকোন মিষ্টি খাবারের স্বাদ এবং সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য কিসমিস ব্যবহার করা হয়।কিন্তু কিসমিসের কত গুণ, তা অনেকেরই অজানা। রোজ এক কাপ করে কিসমিস ভেজানো জল খেলে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়।
কিসমিস এর মধ্যে আছে কার্বোহাইড্রেট রয়েছে যা আমাদের শরীরের শক্তি জোগায়। এর মধ্যে থাকে পাওয়া যায় পটাশিয়াম, যা আমাদের হার্টকে সতেজ রাখে এবং কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে | কিশমিশের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন যা আমাদের রক্তস্বল্পতা কমাতে বিশেষভাবে উপকারে আসবে |
জেনে রাখা উচিত কিসমিসের ভেজানো জল খেলে কি কি উপকার পেতে পারেন আপনি ?

এছাড়াও নিয়মিত কিসমিস চিবিয়ে খেলে বা কিসমিস ভেজানো জল খেলে লিভারও ভাল থাকে। খাবার রুচি বৃদ্ধি করে | যারা পেটের রোগে ভুগছেন তাদের জন্য এই জন বিশেষ উপকারে আসে | রাত্রিবেলায় ঘুমাতে যাওয়ার আগে কিছু কিসমিস জলে ভিজিয়ে দিন পরের দিন সকালবেলা শেষ দিন সেবন করুন | এতে পেটের রোগ থেকে মুক্তি পাবেন | কিসমিস ভেজানো জল খেলে পেটের রোগের পাশাপাশি লিভার রোগ যেমন ভালো রাখে তেমনি কিডনি এক্ষেত্রেও সুস্থ রাখে কিডনিকে | খাওয়ার পরে চিবিয়ে খেলে এটি খাদ্য হজমের ক্ষেত্রেও বেশ উপকারে আসে |

 

কিসমিসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার,| যার জন্য আমাদের খাবার গুলো তাড়াতাড়ি হজম হয়ে যায় | খাদ্য হজম হয়ে যাওয়ার জন্য কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর হয়ে যায়।
কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা | যদি না জানেন তাহলে জেনে নিন কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা | যদি না জানেন তাহলে জেনে নিন
কিসমিসের অন্যান্য গুণাবলি |
অনেকের অনিদ্রা জনিত রোগ আছে | এর জন্য ঠিকমত ঘুম আসে না। যাদের অনিদ্রা জনিত রোগ আছে তাদের জন্য কিসমিস অনেক উপকারি । কারন কিশমিসের মধ্যে রয়েছে প্রচুর আয়রন যা আমাদের শরীরের অনিদ্রার চিকিৎসায় বিশেষভাবে উপকারী। তাই আপনি রোজ কিসমিস খেতে পারেন | এতে আপনার ঘুম ভালো হবে | এছাড়াও আপনি যদি চান আপনার ওজন বাড়াতে তাহলে ও কিসমিস আপনার উপকারে আসবে | কারণ কিসমিসে মধ্যে আছে প্রচুর ফ্রুক্টোজ ও গ্লুকোজ | যা আমাদের শরীরের ওজন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে | সুতরাং আপনি দৈনিক কিসমিস খেয়ে আপনার ওজন বৃদ্ধি করতে পারবেন |

এছাড়া কিসমিস আমাদের মস্তিষ্ক বা ব্রেইন এর জন্য উপকারী | আপনি চাইলে আপনার বাচ্চাদের বা আপনার ফ্যামিলি মেম্বারদের কিসমিস খাওয়াতে পারেন | যার ফলে আপনার দেখতে বাচ্চাদের পড়াশোনার মনোযোগ আরো বেশি হয়ে উঠবে |
এছাড়াও আরও অনেক গুণ আছে যেগুলো আমরা কিসমিসের মধ্যে পেতে পারি | সুতরাং আপনি দৈনিক কিসমিস খেয়ে নিজের শরীরকে নিজের ব্রেইনকে সুস্থ রাখতে পারেন |কিসমিসের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা |