তবে কি সত্যিই কমতে চলেছে সরকারি বেতন? আগামী এপ্রিলে হতে পারে ঘোষণা, বিস্তারিত কারণ জানুন

 

বর্তমান দিনে সরকারি চাকরি পাওয়া যেন অসাধ্য সাধন করার মত বিষয়। তবে যারা সরকারি চাকরি করছেন তাদের জন্য আগামী এপ্রিলে আসতে পারে দুঃসংবাদ। আর কেন্দ্র সরকারের দেওয়া তথ্য বলছে এমন ওই কথা। তথ্য জানানো হয়েছে যে একজন কেন্দ্রীয় কর্মচারী যা বেতন পায়। সেই বেতনের কিছুটা অংশ আগামী বছরের এপ্রিল মাস থেকে কমে যাবে। সরকারের তরফ থেকে যে নতুন বিল আনা হয়েছে সেই অনুযায়ী এমন ঐ ঘটতে চলেছে।

কোড অফ ওয়েজেস ২০১৯ এর নতুন নিয়ম চালু হতে চলেছে আগামী অর্থবছর তথা ২০২১ সালের এপ্রিল মাস থেকে। সরকারের এই নতুন নিয়ম অনুযায়ী বেতন ক্রমে যে এল এন্স বা সরকারের তরফ থেকে বিশেষ ভাতা দেওয়া হতো। সেই ভাতা মূল বেতনের ৫০ শতাংশের বেশি পাবেনা। এর অর্থ হলো সাধারণ বেতনের চেয়ে বেশি হতে পারবে না কোন ভাতা।

এর জন্য সাধারণ বেতন ৫০% হতে হবে। সাধারণ বেতন যদি৫০% হয়, তবে স্বাভাবিকভাবেই প্রভাব পড়বে প্রভিডেন্ট ফান্ডও গ্র্যাচুয়িটি পেমেন্ট যার একটা বড় অংশ কাটা হয় কর্মীদের বেতন থেকে। সাধারণ বেতন বারলে প্রভিডেন্ট ফান্ড ও গ্র্যাচুইটির টাকার পরিমান বাড়তে চলেছে। যার প্রভাব পড়বে কর্মীদের হাতে পাওয়া বেতনের উপর।

ঠিক এ কারণেই সরকারি কর্মীদের মাইনে কমতে চলেছে।  বর্তমানে প্রাইভেট কম্পানি গুলির নিয়মআনিসারে, কর্মচারিদের বেসিক স্যালারি কমিয়ে বিভিন্ন ভাতার পরিমান বাড়িয়ে দেয়।এই বিষয়তি পুরোপুরিই পাল্টাতে চলেছে।তাই বেসরকারি কোম্পানির আমরা কর্মীদের উপর এই নতুন নিয়ম বিশেষভাবে প্রভাব ফেলতে চলেছে।

এর ফলে কোম্পানির বাড়তে চলেছে কর্মীদের খরচ। কারণ বেসিক সেলারি বাড়লে কোম্পানির তরফ থেকে যে গ্রেচুয়েটি ও প্রভিডেন্ট ফান্ড দেওয়া টাকার পরিমানও বেড়ে যাবে। এক্ষেত্রে কোম্পানিগুলির খরচের পরিমাণ বাড়বে প্রায় ১০ থেকে ১২ শতাংশ।